মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সিটিজেন চার্টার

 প্রতিষ্ঠাণের কার্যাবলী :

 

১। জরুরী নতুন পাসপোর্ট প্রদান (মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট)

২।সাধারণ নতুন পাসপোর্ট প্রদান (মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট)

3. MRP রিইস্যু জরুরী/সাধারণ 

 

মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট  এর পদ্ধতি :

 

১. প্রথমেই যেকোন পাসপোর্ট অফিস হতে বিনামূল্যে আবেদন ফরম সংগ্রহ করতে হবে অথবা www.dip.gov.bd এই ওয়েব সাইট হতে ফরম সংগ্রহ করা যাবে।ফরম পূরণ করার পূর্বে ফরমে লিখিত নির্দেশাবলী সঠিকভাবে অনুসরন করতে হবে।

 ২. দ্বিতীয় ধাপে আবেদন পত্র /ফরম পূরণ করার পর তা যথাযথ ব্যক্তি দ্বারা সত্যায়িত করতে হবে । (ফরমে উল্লেখিত নির্দেশ অনুসারে )

 

৩. জরুরী আবেদনের জন্য (৬০০০+ ১৫% হারে ভ্যাট) টাকা এবং সাধারন আবেদনের জন্য (৩০০০+ ১৫% হারে ভ্যাট) টাকা সোনালী ব্যাংক এর সুনামগঞ্জ শাখায় জমা দিয়ে স্লিপ ফরমেরে উপরের অংশে গাম দিয়ে লাগাতে হবে ।

 

৪. জাতীয় পরিচয়পত্র অথবা জন্মনিবন্ধন সনদের ফটোকপি সত্যায়িত করে আবেদনপত্রের সাথে সংযুক্ত করতে হবে । প্রযোজ্য ক্ষেত্রে যথাযথ কতৃপক্ষ কতৃক প্রদত্ত অনাপত্তিপত্র (এনওসি)সাথে দিতে হবে।

 

 

৫. আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস, সুনামগঞ্জ উপস্থিত হয়ে আবেদন পত্র দাখিল করতে হবে।সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা আবেদনপত্র যাচাইবাছাই করে নির্দিষ্ট সময়ে অফিসের এমআরপি শাখায় পাঠাবেন। এখানে আবেদনকারীর তথ্যাদি, ছবি ও ডিজিটাল স্বাক্ষর সংগ্রহ করা হবে।আবেদনকারীর এ সমস্থ কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর একটি রশিদ প্রদান করা হবে। যাতে সম্ভাব্য বিতরন তারিখ উল্লেখ করা থাকবে।

 

৬. বিতরন রশিদে উল্লেখিত সময়ে আবেদনকারী নিজে অফিসে উপস্থিত হয়ে পাসপোর্ট সংগ্রহ করবেন। এছাড়াও আবেদনকারী তার আবেদনের অবস্থা (প্রসেস)মোবাইলে এসএমএস এর মাধ্যমে জানতে পারেন এবং পাসপোর্ট ইস্যুর বিষয় নিশ্চিত হয়ে পাসপোর্ট সংগ্রহের জন্য আসতে পারেন। উল্লেখ্য বিতরন রশিদে কোথায় এবং কিভাবে এসএমএস পাঠাতে  হবে তা লিখা থাকে।

 

আবেদনের প্রকৃতি

বিতরণের ধরণ

পাসপোর্ট ফিস (টাকা)

নতুন আবেদনকারী/ হাতে লেখা পাসপোর্ট সমর্পণকৃতদের (সারেন্ডার) জন্য

জরুরি ফিস (৭ দিন) 

৬০০০.০০ + ১৫% ভ্যাট = ৬৯০০.০০ টাকা

সাধারণ ফিস (২১ দিন)

৩০০০.০০ + ১৫% ভ্যাট = ৩৪৫০.০০ টাকা

অনাপত্তি সনদ (NOC) এর ভিত্তিতে (জরুরি সুবিধাসহ)

৩০০০.০০ + ১৫% ভ্যাট = ৩৪৫০.০০ টাকা

সরকারি আদেশ (GO) এর ভিত্তিতে চিকিৎসা, হজ্জ্ব পালন, তীর্থস্থান ভ্রমণের ক্ষেত্রে (জরুরি সুবিধাসহ)

৩০০০.০০ + ১৫% ভ্যাট = ৩৪৫০.০০ টাকা

সরকারি আদেশ (GO) এর ভিত্তিতে সরকারি কাজের ক্ষেত্রে (জরুরি সুবিধাসহ)

বিনামূল্যে

রি-ইস্যু

জরুরি ফিস (৭ দিন) (NOC/GO ব্যতীত)

৬০০০.০০ + ১৫% ভ্যাট = ৬৯০০.০০ টাকা

সাধারণ ফিস (২১ দিন)

৩০০০.০০ + ১৫% ভ্যাট = ৩৪৫০.০০ টাকা

মেয়াদোত্তীর্ণ পাসপোর্ট রি-ইস্যুর ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ফিস (মেয়াদ পরবর্তি প্রতি বছরের জন্য)

সাধারণ ফিস 

৩০০.০০ + ১৫% ভ্যাট = ৩৪৫.০০ টাকা

 

 

> অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকুরীজীবি ও তাদের স্বামী/স্ত্রী (নতুন আবেদন ও রি-ইস্যু উভয় ক্ষেত্রে) সাধারণ ফি প্রদান করে জরুরি সুবিধা পাবেন। এক্ষেত্রে অবসর গ্রহণের সনদ দাখিল করতে হবে।

> সোনালী ব্যাংকের পাশাপাশি আরও ৫টি ব্যাংকে টাকা জমা দিতে পারবেন।

১) ওয়ান ব্যাংক
২) ট্রাস্ট ব্যাংক
৩) ব্যাংক এশিয়া
৪) প্রিমিয়ার ব্যাংক
৫) ঢাকা ব্যাংক।

 

 

 

কিছু সাধারন পরামর্শ

 

 

১.     আবেদনপ্রত্রে উলেস্নখিত তথ্যাদি ভালভাবে যাচাই বাছাই করে আবেদন পত্র জমা দিন। কেননা আবেদন পত্র জমার পর তথ্য সংশোধনের বিষয়টি খুবই জটিল।

 

২.    আবেদনপত্রে মিথ্যা তথ্য প্রদান বা তথ্য গোপন করা আইনত দন্ডনীয়।

 

৩.   পুলিশ ভেরিফিকেশন এর জন্য বর্তমান ঠিকানার ভিত্তিতে এক প্রস্থ আবেদন পত্র সংশিস্নষ্ট এসবি/ডিএসবি অফিসে প্রেরণ করা হয়। অনুকূল পুলিশ প্রতিবেদন প্রাপ্তির উপর পাসপোর্ট প্রাপ্তি নির্ভর করে।

 

৪.     যেসকল ব্যাক্তি পাসপোর্টের আবেদনপত্র সত্যায়িত করতে পারেন তাদের তালিকা পাসপোর্ট ফরমের শেষ পৃষ্ঠায় রয়েছে।

 

৫.    আবেদনপত্র জমা দেয়ার সময় অবশ্যই রঙ্গিন পোশাক পরিধান করতে হবে। সাদা বা হাল্কা রং এর পোশাক গ্রহনযোগ্য নয়।

 

৬.    আবেদনপত্র জমার পর পরবর্তী কার্যক্রম মোবাইল ফোনে এসএমএস প্রেরনের মাধ্যমে জানা যাবে এবং পাসপোর্ট ইস্যুর তারিখ এসএমএস এর মাধ্যমে জানানো হয়।

 

৭.  কোন কোন আবেদনকারী ঘরে বসে অনলাইনে পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করতে পারবেন । (www.passport.gov.bd)

 

ছবি


সংযুক্তি

2a03acd68e883db0651b8da82c0ef30e.pdf 2a03acd68e883db0651b8da82c0ef30e.pdf

সংযুক্তি (একাধিক)

88c7a62f56ad582d97c6b67f01beadc8.pdf 88c7a62f56ad582d97c6b67f01beadc8.pdf


Share with :
Facebook Twitter